Home » মোটর সাইকেল যন্ত্রাংশ » বাইকের পার্টস কেনার কথা ভাবছেন?

বাইকের পার্টস কেনার কথা ভাবছেন?

 

বাইকের পার্টস কেনার কথা ভাবছেন?

সঠিক মোটরসাইকেল কেনা একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। বিশেষ করে যাদের আগে কখনও মোটরসাইকেল ছিল না। এর জন্য সময়, এনার্জি এবং অনুসন্ধান করে সঠিক বাইকটি পছন্দ করতে হবে।

যাই হোক, শুধুমাত্র মোটরসাইকেল কিনলে যে আর কিছু কিনতে হবে না তা চিন্তা করা ভুল। যদি আপনি একটি নতুন মোটরসাইকেল কিনে থাকেন, তবে এটি অনেক সময় মেরামত এর প্রয়োজন পড়ে। তার মানে আপনাকে অবশ্যই বাইক এর পার্টস কিনতে হবে।

এই আর্টিকেল টি সম্পর্কে আপনার মতামর অথবা সাজেশন কমেন্ট বক্সে জানাতে ভুলবেন না।

তিন ধরনের মোটরসাইকেল পার্টস রয়েছে। সকল পার্টস এই তিন ধরনের ক্যাটাগরির মধ্যেই বিক্রি হয়ে থাকে।

১. ওইএম মোটরসাইকেল পার্টস

২. আফটার মার্কেট মোটরসাইকেল পার্টস

৩. ব্যবহৃত মোটরসাইকেল পার্টস

এই তিন ধরনের মোটরসাইকেল পার্টস সম্পর্কে সংক্ষিপ্ত ধারনা দেওয়ার প্রচেস্থা থাকবে আমাদের

ও ই এম (OEM) মোটরসাইকেল পার্টস

বেশির ভাগ দোকান এবং মোটরসাইকেল পার্টস বিক্রেতা ও ই এম(OEM)  মোটরসাইকেল পার্টস বিক্রি করে থাকে। ওইএম বলতে অরিজিনাল ইকুইপমেন্টস ম্যানুফেকচার বুঝায়। এর মানে সকল ওইএম পার্টস মোটরসাইকেল কম্পানি কর্তৃক তৈরি হয়ে থাকে। যেমন, ওইএম হোন্ডা মোটরসাইকেল পার্টস প্রস্তুত করে হোন্ডা কম্পানি। ওইএম পার্টস কেনা মানে আপনার বাইক এর যে পার্টসটি কিনবেন, তা পরিবর্তন করা। তবে আপনি একবারে নতুন ওইএম পার্টস পাবেন। এদের কিছু কিছু পার্টসে ওয়ারেন্টিও রয়েছে।

ওইএম মোটরসাইকেল পার্টস কিনার সুবিধা

ওইএম মোটরসাইকেল পার্টস কিনার সবচেয়ে বড় সুবিধা যে, এটি আপনার বাইকে সঠিকভাবে ফিট হবে। কারণ, এই পার্টসটি কম্পানি কর্তৃক আপনার বাইকের সাথে তৈরি করা হয়েছে। সাধারণভাবে, ওইএম মোটরসাইকেল পার্টস অনেকদিন পর্যন্ত স্থায়ী হয়। বাইক এর পার্টস রিপ্লেসমেন্ট এর জন্য ওইএম মোটরসাইকেল পার্টস কেনা সবচেয়ে ভালো। যেকোনো ধরনের পরিবর্তনের ক্ষেত্রে কোনো সমস্যা হয় না। ওইএম মোটরসাইকেল পার্টসই হলো সুবিধাজনক পন্থা।

ওইএম মোটরসাইকেল পার্টস এর অসুবিধা

ওইএম পার্টস কেনার সবথেকে প্রধান সমস্যা এর খরচ অনেক বেশি। এ ছাড়াও ওইএম মোটরসাইকেল পার্টস সচরাচর পাওয়া যায় না। ওইএম মোটরসাইকেল পার্টস শুধুমাত্র মোটরসাইকেল এর ডিলার থেকে বিক্রি হয়ে থাকে। অন্যান্য ধরনের পার্টসগুলো আপনি অথোরাইজড ডিলার বা অনলাইনে এবং রিটেইল আউটলেট এ কমদামে পাওয়া যায়।

আফটার মার্কেট মোটরসাইকেল পার্টস

ওইএম পার্টস না পাওয়া গেলে, আপনার বাইকের অরিজিনাল পার্টস এর মতো অথোরাইজড পার্টস সাপ্লাইয়ারই হলো আফটার মার্কেট মোটরসাইকেল পার্টস। যা তৈরি হয় থার্ড পার্টি দ্বারা। আফটার মার্কেট মোটরসাইকেল পার্টস এর থার্ড পার্টি অথোরাইজড নয়, তবে কোন মাধ্যমে বাইক ম্যানুফেকচার কম্পানির সাথে তাদের সংযোগ থাকতে পারে। কিন্তু, কম্পানির জন্য তারা সঠিক ফিট মোটরসাইকেল পার্টস প্রস্তুত করে থাকে।

আফটার মার্কেট মোটরসাইকেল পার্টস সুবিধা 

তারা বিভিন্ন কম্পানির আফটার মার্কেট মোটরসাইকেল পার্টস প্রস্তুত করে থাকে। আফটার মার্কেট পার্টস এর কিছু কিছু পার্টস দামি। এগুলো অনেক ভালো মানের হয়ে থাকে। আফটার মার্কেট মোটরসাইকেল পার্টস কিনার আগে অবশ্যই আপনার ব্র্যান্ড সম্পর্কে নিশ্চিত হয়ে নিন। কিছু ব্র্যান্ড কমদামে পার্টস বিক্রি করে থাকে। যার ফলে এরা মার্কেট এ বেশি পরিচিত। আপনি অবশ্যই পার্টস কেনার আগে আপনার ব্র্যান্ড এর সম্পর্কে ভালো ভাবে জেনে নিন। আফটার মার্কেট মোটরসাইকেল পার্টস অনেকাংশে ওইএম পার্টস এর মতো ভালো মানের। আফটার মার্কেট পার্টস যেকোনো রিটেইলার এবং অনলাইন এ পাওয়া যায়।

আফটার মার্কেট মোটরসাইকেল পার্টস অসুবিধা

এর প্রধান সমস্যা হচ্ছে অনেক থার্ড পার্টি কম্পানি আফটার মার্কেট পার্টস প্রস্তুত করে থাকে। এর মধ্য থেকে সঠিক ব্র্যান্ড খুঁজে বের করা কষ্টসাধ্য। অনেক সময় মোটরসাইকেল এর অরিজিনাল ম্যানুফেকচার পাওয়া যায় না।

ব্যবহৃত মোটরসাইকেল পার্টস

আপনার বাইক এর জন্য ওইএম পার্টস বা আফটার মার্কেট মোটরসাইকেল পার্টস কোনোটাই না পাওয়া গেলে আপনি আরেক ধরনের পার্টস ব্যবহার করতে পারেন। ব্যবহৃত মোটরসাইকেল পার্টস হলো শেষ উপায়। এসব পার্টস এর গ্যারান্টি নেই। আপনার মোটরসাইকেল রিপেয়ার করার সবচেয়ে সহজ উপায় ব্যবহৃত মোটরসাইকেল পার্টস লাগানো। তবে, পার্টস ক্রয় করার সময় অবশ্যই বায়ার এর সাথে সঠিকভাবে যাচাই করে নেবেন।

মোটরসাইকেল পার্টস এর মধ্যে ইঞ্জিন রিপেয়ার বা ব্যবহৃত মোটরসাইকেল ব্রেক কেনা অনেকটাই রিস্কি। এ জন্য আপনার মোটরসাইকেল এক্সেসরিজ সম্পর্কে ধারণা থাকা প্রয়োজন। এতে আপনি নিজেই স্বল্পখরচে ইচ্ছেমতো আপনার বাইক এর পার্টস কিনতে এবং রিপেয়ার করতে পারবেন।

এবার আপনি জনলেন বাইকের পার্টস এর প্রকার। এখন আপনি সহজেই নির্ধারণ করতে পারবেন কোন ধরনের বাইকের পার্টস টি আপনার প্রয়জন। আপনার সাথে আপনার বাইক ভালো থাকুক এই প্রত্যাশায়, আজ এই পর্যন্ত।

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

error: Content is protected !!